বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ১২:১৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “হাসি”র উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্মসূচি রক্তাক্ত আমাদের আবেগ অনুভূতিঃ মাধবদীতে মেয়র গ্রুপের হামলায় ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাবেক কাউন্সিলর জাকারিয়া গুলিবিদ্ধ ফরম সংগ্রহ করেছেন নরসিংদী সরকারি কলেজ ছাত্রদলের আহবায়ক প্রার্থী মেহেদি ঢাকা-১৪ আসনের উপনির্বাচনে মনোনয়ন দৌড়ে এস.এম মান্নান কচি! জেলা পুলিশের কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষরিত ,নরসিংদী একসঙ্গে কোরআনে হাফেজ হলেন 4 জন ফিলিস্তিনি জমজ বোন বেপরোয়া কিশোর গ্যাং : তিন বছরে খুন অর্ধ শতাধিক চরদিঘলদীতে দিবা-রাত্রী শর্টপিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্টেরর ফাইনাল অনুষ্ঠিত নরসিংদীর সর্বস্তরের জনগণকে ঈদ শুভেচ্ছা জানিয়েছে এমপি বুবলী

নির্বাচনি আচরণবিধি ভাঙ্গল জয়-লেখক

শফিক আহমেদ ভূইয়া / ৭৬ শেয়ার
প্রকাশিত : রবিবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২১

পণ্য পরিবহনকারী বিশাল ট্রেইলার গাড়িকে মঞ্চ বানিয়ে আগে-পিছে মোটরসাইকেল, পিকআপ ভ্যান নিয়ে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরীর সমর্থনে প্রচারণা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। প্রচারণায় অংশ নেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়া

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) নগরীর লালখানবাজারের ইস্পাহানি মোড় থেকে শুরু হওয়া প্রচারণার গাড়িবহর নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। তাদের গাড়িবহরের কারণে যানজট সৃষ্টি হওয়ায় সাধারণ মানুষকেও ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে।

নির্বাচনি আচরণবিধি অনুযায়ী প্রচারণায় গাড়িবহর ও শোডাউন নিষিদ্ধ আছে। আচরণবিধি ভেঙে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে এই মিছিল-শোডাউন হয়েছে, যাতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাধারণ মানুষও।

বিশাল একটি খোলা ট্রেইলারকে ডেকোরেশনের কাপড় দিয়ে সাজিয়ে বানানো হয় ভ্রাম্যমাণ মঞ্চ। এর সামনে অন্তঃত শ’খানেক মোটরসাইকেল। পেছনে আরও অন্তঃত ২৫টি পিকআপ ভ্যান। এর পেছনে আরও কিছু মোটরসাইকেল। ধীরগতিতে চলা গাড়িবহরের সঙ্গে হেঁটে অংশ নেয় ছাত্রলীগের কয়েক’শ নেতাকর্মী। ট্রেইলারে ছিলেন কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতারা।

ট্রেইলারসহ কয়েকটি গাড়িতে লাগানো মাইক থেকে অব্যাহতভাবে স্লোগান দেওয়া হচ্ছিল। ছুঁড়ে দেওয়া হচ্ছিল প্রচারপত্র। এর সঙ্গে যুক্ত হয় মোটরসাইকেলের হর্ন। এভাবে চলা গাড়িবহরের কারণে সড়কে তীব্র যানজট দেখা যায়। পাশাপাশি তীব্র শব্দেও বিরক্ত হন সাধারণ লোকজন।

নগরীর বহদ্দারহাট মোড় ঘুরে মিছিলটি পুনরায় মুরাদপুর এসে শেষ হয়। সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। উপস্থিত ছিলেন নগর কমিটির সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু ও সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া দস্তগীর, উত্তর জেলার সভাপতি তানভীর হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, দক্ষিণ জেলার সভাপতি এস এম বোরহান ও সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের, চট্টগ্রাম কলেজের সভাপতি মাহমুদুল করিম ও মহসিন কলেজের মাইমুন উদ্দিন মামুন।

লালখানবাজার ও বাগমনিরাম ওয়ার্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস এম আলমগীর বলেন, ‘আমার দায়িত্বপ্রাপ্ত ওয়ার্ডে গাড়িবহর নিয়ে শোডাউন হয়েছে বলে শুনেছি। কিন্তু আমি এলাকায় ছিলাম না। প্রটোকল ডিউটির কারণে বাইরে ছিলাম। আমি বিষয়টি আমার ঊর্দ্ধতনদের অবহিত করব।


এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
Developed by BongshaiIT.com
ব্রেকিং নিউজ
ব্রেকিং নিউজ